শ্যালক

আঠেরোর কুঁড়ে শীত কেমন কাটছে বন্ধুরা?  বছরটা কি ধরণের লেখা দিয়ে শুরু করব ভাবতে ভাবতে ঠিক করলাম একটা লঘু লেখা দিয়ে তরল পাঠক আর প্রিয়দর্শিনী পাঠিকাদের মনোরঞ্জন করার চেষ্টা করে দেখি। কবিতা মানেই আজকাল কবিরা সিরিয়াস, আবেগঘন লেখা বোঝে। যযাতির ঝুলি থেকেও গুরু গম্ভীর কবিতা বেরোয় মাঝে মাঝে। আপনারা পড়েছেন এবং অনেকে পছন্দও করেছেন বহুবার।... Continue Reading →

বন-পাহাড়ি

কদিন আগেই বন্ধুবান্ধব মিলে গেছিলাম Smokey Mountain। রূপসী ধূম্র পাহাড়-এর এক চন্দ্রালোকিত সন্ধ্যায় বসে লিখেছিলাম। ******** আজ আকাশে আঁকা তারার আলপনা আজকে রাতে হোক কবিতা। গল্প না। পাহাড়-পথে পড়ছে ঝরে জোছনা জল আজ এ রাতে আমার সাথে থাকবি বল! গাছের পাতায় কুয়াশাদের চুপ সোহাগ জড়িয়ে - যেন উপগতার পূর্বরাগ। আজকে নিবিড় আশ্রয় তোর নরম বুক... Continue Reading →

মেঘ প্রতিশ্রুতি

শিকাগোতে আজ টুপ টুপ টুপ বৃষ্টি সকাল থেকে। তাই এই কবিতাটা আমার প্রিয় পাঠকদের জন্য। যারা তেমন পড়ার সময় পান না, তাদের কথা ভেবে কবিতাটা আবৃত্তিও করে দিলাম। সোজা নিচে গেলে লিঙ্কটা পাবেন। যারা পড়তে ভালবাসেন, তারাও আবৃত্তিটা শুনতে পারেন। আশা করি ভালোই লাগবে।

সুখ

এইখানে আজ আমি থাকি। এইখানে কাটে এই বিনিদ্র রজনী একাকি। এইখানে একান্তিকে আমার এই ভাঙ্গা মন্দির। চারিদিকে তুলেছি এক নিশ্ছিদ্র প্রাচীর। বাইরে হিংস্র উরগদের জান্তব চিৎকার। এই আঙিনাতে বসে শুনতে পাই না আর। চোখে শুধু এক স্বপ্ন লেগে থাকে - একদিন নির্জন বনবীথিকার কোনো বাঁকে ফুটবে পলাশ আর ফুটবে রক্ত কিংশুক। লাজুক পাপড়ি গুলো যেন... Continue Reading →

সন্ধে নামার প্রাক্কালে

বৈশাখী বিশীর্ণ বিকেলে মেঘেদের মাধুকরী শেষ হলে পরে বায়বীয় বিষণ্ণতা আকাশের চোখে লেগে থাকে   সন্ধে নামার প্রাক্কালে মনে হয় পৃথিবীটা ভারি কাব্যময় অন্তরালে ডালে ডালে শুকসারি চুপ বসে থাকে দোয়েল চন্দনারা কোন এক বেদনসুরে গায় পৃথিবীতে স্বপ্ন নামে, কবিতা নামে ধীর ভঙ্গিমায় শিশির পেলব কথা জমে থাকে পথেদের বাঁকে   অবসান যত অঙ্ক, যত... Continue Reading →

ওভারশুট ডে

শোচনীয় সিচুয়েশানে শ্যামবাজারের শ্যামলা বলল হেঁকে “আর পারিনে, এবার তোরা সামলা। মরবি তোরা মরবি এবার, এবার পাবি অক্কা সারা বছরের রসদ তোদের আগাস্ট মাসেই ফক্কা? এই গ্রহ যা দিতে পারে এক বছরের খাবার খিদে তোদের এতই যে সব আগাস্ট মাসেই সাবাড়? তেল পোড়ানো কমাতে হবে যতই বলি তোদের শুনবি না গরিবের কথা। দেখ ফলাফল জেদের... Continue Reading →

কলকাতায় ভেনিস

ঘুমের মধ্যে বললেন এসে হরি
"এবার তোমায় যেতে হবে। চলো হে তাড়াতাড়ি"
আমি বললাম "হে প্রভু আপনার পায়ে পড়ি
আমায় কেন যেতে হবে এখুনি যমের বাড়ি?
কি দোষ আমার? আমি কি চুরি করি?
নাকি আমি election লড়ি?.... Continue reading

জন্মদিনে

জন্মদিনে ঘুম থেকে উঠে নিজেকে ঈশ্বর মনে হয় বাথরুমে গিয়ে আয়নায় স্পষ্ট দেখতে পাই আমার মাথার পেছনে ঈশ্বরীয় হ্যালো দু চোখের মাঝখানটা দগদগ করতে থাকে এই বুঝি ফুটে উঠবে অনুভবী তৃতীয় চক্ষু হাতটা নিজের অজান্তেই তথাস্তু মুদ্রা নেয় বার বার ঠোঁটের কোনে লেগে থাকে ক্ষমাশীল স্মিত পরিশীলিত হাসি রাস্তায় বেরোলেই দেখি রাশি রাশি রাঙা রঙ্গন... Continue Reading →

Blog at WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: