তোকে চাই না

একলা পথে চলব তোকে চাই না                 একলা কথা বলবে মন আয়না তোর চোখে চোখ রেখে সারা রাতটা                 জাগবো না আর, দেখব না ঐ রূপটান।   তোর কথা আর ভাববো না। বৃষ্টির গান               … Continue reading তোকে চাই না

বন-পাহাড়ি

কদিন আগেই বন্ধুবান্ধব মিলে গেছিলাম Smokey Mountain। রূপসী ধূম্র পাহাড়-এর এক চন্দ্রালোকিত সন্ধ্যায় বসে লিখেছিলাম। ******** আজ আকাশে আঁকা তারার আলপনা আজকে রাতে হোক কবিতা। গল্প না। পাহাড়-পথে পড়ছে ঝরে জোছনা জল আজ এ রাতে আমার সাথে থাকবি বল! গাছের পাতায় কুয়াশাদের চুপ সোহাগ জড়িয়ে - যেন উপগতার পূর্বরাগ। আজকে নিবিড় আশ্রয় তোর নরম বুক … Continue reading বন-পাহাড়ি

স্বাধীনাকে

আজও তোর ছাদের বাগানে বোগেনভিলিয়া হয়ে ফুটি                তোর আঙ্গুলের ছোঁয়া পাব বলে আজও তোর ঠোঁটে সিগারেট হয়ে জুটি           তোর ফুসফুসে কার্বন হয়ে জমবো বলে আজও হাতে গেলাস হয়ে তোর স্নায়ুতে, মস্তিস্কে মাদক হয়ে ছুটি,          নেশাতুর ঘুমের রেশ আজও সদ্য-গোঁফ-ওঠা … Continue reading স্বাধীনাকে

মেখলা তুমি

মেখলা, তুমি একলা বিকেলে আমার সাথে বৃষ্টিতে ভিজেছিলে মনে পড়ে? মেখলা, তোমার হাতের নরমে আমার হাতকে আশ্রয় দিয়েছিলে যত্ন করে মেখলা, তুমি অষ্টমীতে নীল শাড়িতে আকাশ হয়েছিলে মনে আছে? মেখলা, তোমার কস্তুরী মৃগী গন্ধ পেতে আসতে চেয়েছিলাম আরো কাছে মেখলা, তুমি স্নানশেষে খোলা চুলে কার অপেক্ষায় দাঁড়িয়েছিলে জানালাতে মেখলা, সেই বৃষ্টিস্নাতা মিষ্টি তোমায় লুকিয়ে দেখেছিলাম … Continue reading মেখলা তুমি

আমার তুমি

তুমি দুর আকাশে ঝিনুক হয়ে ফোটো আমি ঘুম চোখেতে বিভোর হয়ে দেখি তুমি শিউলি ফুলে শিশির হয়ে ভেজো আমি তোমার গন্ধ শরীর জুড়ে মাখি তুমি ঢেউ হয়ে এসে আছড়ে গায়ে পড়ো আমি নিষ্ঠুর সেই আঘাত বুকে পাই তুমি ভিজিয়ে দিয়ে আবার ফিরে যাও আমার একলা বিকেলে তোমার প্রতিক্ষাই তুমি আকাশ জুড়ে বৃষ্টি হয়ে ঝরো আমি … Continue reading আমার তুমি

অহল্যাকে

আজ হেমন্ত। মহানন্দা নদীর ঘাটে ফুটে আছে ঘেঁটু ফুল, অনাদৃতা; একটা তিতির পাখি তার অস্থির ডানায় পড়ন্ত বিকেলের বিষণ্ণ কমলা মেখে পথ ভুল, অতন্দ্রিতা; নদীর জলে পা ডুবিয়ে একলা বসে, মেখলা, তোমার কোমর ছড়ানো চুল। আজ তুমি বিবাহিতা; আজ তোমার আয়ত দুটি চোখ কান্না ধুধুল। ওগো অবহেলিতা, তোমার চোখের ভাষা বোঝেনি যে জন তোমাতে তবু … Continue reading অহল্যাকে

তোমায় আরও একবার

শ্যাওলার গন্ধের মত নিস্তেজ এক দুপুরবেলা রূপনারাণের এক নির্জন বালুচরে একটা ছাতিম গাছের ছায়ায় তোমার কোলখানা মাথার বালিশ করেছি; তোমার ভেজা শরীরের ছায়ায় দাঁড়িয়ে ভিজেছি, সে বহুকাল হল। . তারপর বহুবার ওই বালুচর, এই বালুচর বিধ্বংসী বন্যায় ভেসেছে; সেই নিস্তেজ শ্যাওলা গন্ধা দুপুরগুলো আজ নারকীয় আক্রোশে বিষ নিশ্বাস ফেলে;; আজ প্রেতের মত আমার খুদিত শীতল … Continue reading তোমায় আরও একবার